Header Ads

আমাদের প্লেয়ারদের ভারত প্রভাবিত করেনি, জানিয়ে দিল শ্রীলঙ্কার মন্ত্রী


শ্রীলঙ্কার মন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো পাকিস্তানের মন্ত্রী ফাওয়াদ হুসেনের দাবি উড়িয়ে দিয়ে জানিয়ে দিলেন, তাঁদের প্লেয়ারদের পাকিস্তানে খেলতে না যেতে চাওয়ার পিছনে ভারতের কোনও ভূমিকা নেই। ফাওয়াদ দাবি করেছিলেন ভারত শ্রীলঙ্কাকে প্রভাবিত করেছে পাকিস্তানে না খেলার বিষয়ে। ফার্নান্দো শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, ১০ জন প্লেয়ার পাকিস্তানে খেলতে যাওয়া থেকে নাম তুলে নিয়েছেন কারণ তাঁদের ২০০৯-এ লাহৌরে শ্রীলঙ্কার টিম বাসের উপর জঙ্গি আক্রমনের কথা মনে রয়েছে। যাতে আটজনের মৃত্যু হয়েছিল এবং অনেকেই আহত হয়েছিলেন। যদিও প্রানে বেঁচে গিয়েছিলেন সব ক্রিকেটাররা। কিন্তু অনেকেই আহত হয়েছিল।
ভারতের হুমকিতে আসছেন না শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা, বিস্ফোরক দাবি পাকিস্তানের
মঙ্গলবার এক টুইটে হারিন ফার্নান্দো বলেন, ‘‘পাকিস্তানে না খেলার বিষয়ে শ্রীলঙ্কার প্লেয়ারদের ভারত প্রভাবিত করেছে, এই তথ্যের কোনও সত্যতা নেই। যারা না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা সকলেই ২০০৯-এর ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে। তাদের সিদ্ধান্তকে সম্মান দিয়ে আমরা তাদের নিয়েই দল বানিয়েছি যারা যেতে রাজি ছিল। আমরা

২০০৯-এ সেই আক্রমণের পর আর পাকিস্তান সফরে যায়নি শ্রীলঙ্কা।
লঙ্কা শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটাররা ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলা পাকিস্তানের সঙ্গে সিরিজে খেলতে না পারার কথা জানিয়েছেন। এই ক্রিকেটাররা হলেন— লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, দীনেশ চান্ডিমল, সুরঙ্গ লাকমল, ডিমুথ করুণারত্নে, থিসারা পেরেরা, আকিলা ধনঞ্জয়, ধনঞ্জয় ডি সিলভা, কুশল পেরেরা ও নিরশন ডিকোয়েলা।
পাকিস্তানের সঙ্গে ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলা সিরিজে শ্রীলঙ্কা তিনটি ওয়ানডে খেলবে (২৭ ও ২৯ সেপ্টেম্বর ও ৩ অক্টোবর)। তিনটি ওয়ানডেই হবে করাচিতে। এরপর লাহোরে ৫ অক্টোবর, ৭ অক্টোবর ও ৯ অক্টোবর হবে তিনটি টি২০ ম্যাচ। পরে ডিসেম্বরে টেস্ট সিরিজ খেলতেও এদেশে আসবে তারা। ওই সিরিজের ম্যাচগুলি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্গত হিসেবে ধরা হবে।

No comments

Powered by Blogger.